‘সরকারি কর্মকর্তারা এলে পরিশোধন কেন্দ্র চালু করেন, পরে বন্ধ করে দেন’

অনুষ্ঠানে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘তৈরি পোশাকশিল্পের কারণে গাজীপুর সারা বিশ্বে পরিচিত, আমাদের গর্বের স্থান গাজীপুর। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য এটি একটি অপরিকল্পিত শহরে পরিণত হয়েছে, আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘তুরাগ নদের তীরে বিশ্ব ইজতেমা হয়। সারা বিশ্বের মানুষ এখানে আসেন, তাঁরা তুরাগ নদীর পানি দিয়ে অজু করেন। আমরা লজ্জিত যে তাঁদের পবিত্র পানি দিতে পারি না। তুরাগ নদকে আমরা ভাগাড়ে পরিণত করেছি।’

গাজীপুরের ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আপনাদের শিল্পবর্জ্য পরিশোধনের কেন্দ্র আছে, না হলে কারখানা করার অনুমতি পেতেন না। কিন্তু আপনারা সরকারি কর্মকর্তারা এলে পরিশোধন কেন্দ্র চালু করেন, তাঁরা চলে গেলে আবার বন্ধ করে দেন। এভাবে আপনারা তাঁদের ফাঁকি দিচ্ছেন, নিজেকে ফাঁকি দিচ্ছেন, দেশের ক্ষতি করছেন।’

অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ‘গাজীপুরে তুরাগ নদ, বালু নদী, জিরাই খাল ও পাশের শীতলক্ষ্যা নদী আছে। আমরা এগুলো রক্ষা করার চেষ্টা করছি। কিন্তু কিছু ব্যবসায়ী একটু বেশি লাভের আশায় নদীতে শিল্পবর্জ্য ফেলে নদীর ক্ষতি করছে।’